কোরআন মুখস্ত করল রেডিও শুনেই জন্মান্ধ শিশু

জন্ম থেকেই দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হোসেন মুহাম্মদ তাহির। তাই রেডিওতে কোরআন তেলোয়াত শুনে পুরো কোরআন মুখস্ত করে সে। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হিসেবে ৫ বছরের শিশুর কুরআন হেফজ এ এক বিরল দৃষ্টান্ত।

জানা যায়, মিয়ানমারে জন্ম নেওয়া হোসেন মুহাম্মদ তাহির সৌদি আরবের জেদ্দায় অবস্থানকারী তার প্রবাসী বাবা মুহাম্মদ তাহিরের কাছে চলে যায়। ছেলেকে নিয়ে কোরআনের হাফেজ বানানোর স্বপ্ন ছিল তার। কিন্তু ছেলে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হওয়ায় সে স্বপ্ন ভেঙে যায় তার। তবুও বাবা মুহাম্মদ তাহির তার ছেলেকে একটি রেডিও কিনে দেন এবং ২৪ ঘণ্টা কুরআন তেলাওয়াতের একটি চ্যানেল নির্ধারণ করে দেন। তবে অদ্ভুত ব্যাপার হল হোসেন মুহাম্মদ তাহির তার বাবাকে অবাক করে দিয়ে রেডিও শুনেই পুরো কুরআন মুখস্ত করে ফেলে।

হোসেনের কোরআন মুখস্ত যেভাবে প্রকাশ পায়:
বাবা মুহাম্মদ তাহির জেদ্দা থেকে মদিনায় চলে যান। মদিনায় আসার পর শিশু হোসেন মসজিদে নববিতে যাওয়ার জন্য বাবার কাছে আবদার করে। তখন বাবা মুহাম্মদ তাহির অনেকটা মজা করেই তার ছেলেকে বলেন, তুমি যদি সুরা বাকারা থেকে কয়েকটি আয়াত মুখস্ত বলতে পারো তাহলে তোমাকে মসজিদে নববিতে নিয়ে যাবে।

বাবার কথা শুনে ছেলে হোসেন কুরআনের সবচেয়ে বড় ও ২৮৬ আয়াতে পুরো সুরা বাকারা শুনিয়ে দেন। তখনই বাবা মুহাম্মদ তাহির জানতে পারেন যে, তার ছেলে রেডিওতে তেলোয়াত শুনেই কুরআন হেফজ করে যাচ্ছেন।

বিস্ময় বালক হোসেনকে নিয়ে বাবা মুহাম্মদ তাহির মদিনার কয়েক জন আলেম ও হাফেজের কাছে যান। তারা বিষয়টি নিশ্চিত করেন যে, শিশু হোসেনের তেলাওয়াত যেমন শুদ্ধ তেমনি সে ধীরে ধীরে কুরআন হেফজ সম্পন্নে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

আলেম ও হাফেজরা শিশু হোসেনকে কুরআন মুখস্ত করার কিছু পদ্ধতি শিখিয়ে দেন। আলেম ও হাফেজদের দিক-নির্দেশনা অনুযায়ী শিশু হোসেন অল্প কিছু দিনের মধ্যেই পুরো কুরআন হেফজ সম্পন্ন করেন।

মন্তব্য করুন »
তৌহিদুল ইসলাম তুহিন - ২৪, সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:২১ পূর্বাহ্ণ - উত্তর করুন

কোরআন মুখস্ত করল রেডিও শুনেই জন্মান্ধ শিশু

একটি মন্তব্য করতে প্রবেশ বা নিবন্ধন করতে হবে।
তৌহিদুল ইসলাম তুহিন - ২৪, সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:২২ পূর্বাহ্ণ - উত্তর করুন

কোরআন মুখস্ত করল রেডিও শুনেই জন্মান্ধ শিশু

জন্ম থেকেই দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হোসেন মুহাম্মদ তাহির। তাই রেডিওতে কোরআন তেলোয়াত শুনে পুরো কোরআন মুখস্ত করে সে। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হিসেবে ৫ বছরের শিশুর কুরআন হেফজ এ এক বিরল দৃষ্টান্ত।

জানা যায়, মিয়ানমারে জন্ম নেওয়া হোসেন মুহাম্মদ তাহির সৌদি আরবের জেদ্দায় অবস্থানকারী তার প্রবাসী বাবা মুহাম্মদ তাহিরের কাছে চলে যায়। ছেলেকে নিয়ে কোরআনের হাফেজ বানানোর স্বপ্ন ছিল তার। কিন্তু ছেলে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হওয়ায় সে স্বপ্ন ভেঙে যায় তার। তবুও বাবা মুহাম্মদ তাহির তার ছেলেকে একটি রেডিও কিনে দেন এবং ২৪ ঘণ্টা কুরআন তেলাওয়াতের একটি চ্যানেল নির্ধারণ করে দেন। তবে অদ্ভুত ব্যাপার হল হোসেন মুহাম্মদ তাহির তার বাবাকে অবাক করে দিয়ে রেডিও শুনেই পুরো কুরআন মুখস্ত করে ফেলে।

হোসেনের কোরআন মুখস্ত যেভাবে প্রকাশ পায়:
বাবা মুহাম্মদ তাহির জেদ্দা থেকে মদিনায় চলে যান। মদিনায় আসার পর শিশু হোসেন মসজিদে নববিতে যাওয়ার জন্য বাবার কাছে আবদার করে। তখন বাবা মুহাম্মদ তাহির অনেকটা মজা করেই তার ছেলেকে বলেন, তুমি যদি সুরা বাকারা থেকে কয়েকটি আয়াত মুখস্ত বলতে পারো তাহলে তোমাকে মসজিদে নববিতে নিয়ে যাবে।

বাবার কথা শুনে ছেলে হোসেন কুরআনের সবচেয়ে বড় ও ২৮৬ আয়াতে পুরো সুরা বাকারা শুনিয়ে দেন। তখনই বাবা মুহাম্মদ তাহির জানতে পারেন যে, তার ছেলে রেডিওতে তেলোয়াত শুনেই কুরআন হেফজ করে যাচ্ছেন।

বিস্ময় বালক হোসেনকে নিয়ে বাবা মুহাম্মদ তাহির মদিনার কয়েক জন আলেম ও হাফেজের কাছে যান। তারা বিষয়টি নিশ্চিত করেন যে, শিশু হোসেনের তেলাওয়াত যেমন শুদ্ধ তেমনি সে ধীরে ধীরে কুরআন হেফজ সম্পন্নে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

আলেম ও হাফেজরা শিশু হোসেনকে কুরআন মুখস্ত করার কিছু পদ্ধতি শিখিয়ে দেন। আলেম ও হাফেজদের দিক-নির্দেশনা অনুযায়ী শিশু হোসেন অল্প কিছু দিনের মধ্যেই পুরো কুরআন হেফজ সম্পন্ন করেন।

একটি মন্তব্য করতে প্রবেশ বা নিবন্ধন করতে হবে।
sultan mahmud - ০৪, এপ্রিল, ২০২০, ৯:১৯ অপরাহ্ণ - উত্তর করুন

আলহামদুলিল্লাহ,, আসলেই এটা আল্লাহর একটি কুদরত

একটি মন্তব্য করতে প্রবেশ বা নিবন্ধন করতে হবে।

একটি মন্তব্য করতে প্রবেশ বা নিবন্ধন করতে হবে।

 

এই সম্পরকিত আরও »
০৫, ফেব্রুয়ারী, ২০২০, ১:০৬ পূর্বাহ্ণ - বিবিসি ফ্লাই
লেখক সম্পর্কে »
জনপ্রিয় পোস্ট »
০৮, জুলাই, ২০১৯, ২:১০ অপরাহ্ণ - বিবিসি ফ্লাই
২৫, জুলাই, ২০১৯, ৬:২৩ অপরাহ্ণ - লতিফা বেগম
২৫, জুলাই, ২০১৯, ৭:২৪ অপরাহ্ণ - লতিফা বেগম
০৫, ফেব্রুয়ারী, ২০২০, ১:০৬ পূর্বাহ্ণ - বিবিসি ফ্লাই
১৬, সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ণ - Papre akther
সাম্প্রতিক লেখাসমূহ »